বৃহস্পতিবার , জুন 20 2019
Breaking News
Home / বিনোদন / বৈচিত্র্যময় পপি

বৈচিত্র্যময় পপি


তিন তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভীন পপি। তিনি কখনোই নিজেকে নির্দিষ্ট চরিত্রের ছকে বেঁধে রাখেননি। বৈচিত্র্যময় চরিত্রে অভিনয় করতে সব সময় প্রস্তুত তিনি। চরিত্রের প্রয়োজনে তিনি কখনো প্রেমিকা, কখনো নির্যাতিত নারী কিংবা সংগ্রামী তরম্নণীর ভূমিকায় নিজেকে মেলে ধরেছেন।
প্রতিবারই পপির এই ভিন্ন ভিন্ন রূপ দর্শক সাদরে গ্রহণ করেছে। তাই তো ক্যারিয়ারের দেড় যুগ পরও পপি সমান চাহিদাসম্পন্ন।
ইদানীং নিজেকে যেন আরও নতুন করে সাজিয়েছেন পপি। ওজন কমিয়ে আগের চেয়ে আকর্ষণীয় হয়েছেন। ভিন্ন লুকে নতুন বছরে নতুন ছবি নিয়ে ক্যামেরার সামনে দাঁড়াবেন এই গস্ন্যামারাস তারকা। তার নতুন এ ছবির নাম ‘টার্ন’। জানা গেছে, এ ছবিতে তাকে দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে। এর মধ্যে একটি চরিত্রে তিনি প্রতিবন্ধীরূপে হাজির হবেন। ছবির শিরোনাম ‘টার্ন’।
এ প্রসঙ্গে পপি বলেন, ‘আমি সব সময়ই নারীপ্রধান গল্পে কাজ করতে পছন্দ করি। এ ছবির গল্প আমাকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে। এতে একই সঙ্গে প্রতিবন্ধী ও বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন দুই তরম্নণীর চরিত্রে আমাকে দেখা যাবে। এর আগে এমন কোনো গল্পে আমার অভিনয় করা হয়নি। ছবিটি পরিচালনা করবেন শহীদুল ইসলাম খান। ছবির কাহিনী ও চিত্রনাট্য লিখেছেন নির্মাতা নিজে।’
বর্তমানে দেশীয় চলচ্চিত্রের অবস্থা খুব একটা ভালো না বলেই পপি মনে করেন। তাই এ বিষয়টি মাথায় রেখেই তিনি নতুন ছবিতে কাজ করবেন। কারণ তিনি চান দর্শক তার ছবিটি সুন্দরভাবে গ্রহণ করে। পপির ভাষ্য, ‘চলচ্চিত্রের বর্তমান অবস্থা ভালো করার জন্য সরকারিভাবে উদ্যোগ নিতে হবে। তা ছাড়া আমাদের দেশে ভালো গল্প, ভালো নির্মাণ ও ভালো ক্রুর খুব অভাব। চলচ্চিত্রের মানও ভালো হচ্ছে না। এ জন্য পরিচালক সমিতির নতুন মুখের সন্ধানে কার্যক্রমের চেয়ে মেধাবী চিত্রনাট্যকার, পরিচালক এবং দক্ষ টেকনিশিয়ান খোঁজা উচিত। কারণ, অভিজ্ঞ শিল্পীরাই পর্যাপ্ত কাজ পাচ্ছেন না। সেখানে নতুনদের এনে তেমন কোনো লাভ হবে না। বলিউডের দিকে তাকালে দেখা যাবে সেখানে শিল্পী তৈরি করা হয়। অভিজ্ঞরাই বেশি কাজের সুযোগ পান। এ বিষয়টি বিবেচনা করা উচিত।’
ক্যারিয়ারের শুরম্ন থেকেই পপি মানসম্মত ও বড় ব্যানারে কাজ করেছেন। তাই নিজেকে বেশ ভাগ্যবতী মনে করেন তিনি। এ প্রসঙ্গে পপি জানান, ‘শুরম্ন থেকে বেশি কাজ করেছি নায়ক মান্নার প্রোডাকশনে হাউসে। মান্নার সঙ্গে একাধিক ছবিতে আমি জুটি বেঁধে ছিলাম। তিনি বেঁচে থাকলে দর্শকরা আমাদের জুটির আরও ভালো কিছু ছবি উপহার পেতেন। তাকে অনেক মিস করি। আরও মিস করি প্রয়াত দুই চিত্রনায়ক জসিম ও সালমান শাহকে। তাদের প্রত্যেককে আমি ভীষণ পছন্দ করি।’
উলেস্নখ্য, পপি অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র সোনাবন্ধু এ বছরই মুক্তি পেয়েছে। ছবিটিতে তার অভিনয় দর্শক পছন্দ করেছেন বলে জানান তিনি।
যখন তার ছবি একের পর এক হিট-সুপারহিট ব্যবসা করছে, তখনই তিনি ভিন্নধর্মী ‘কারাগার’ ছবিটিতে অভিনয় করেন। এরপর তো ‘গঙ্গাযাত্রা’, ‘মেঘের কোলে রোদ’, ‘রাণীকুটির বাকী ইতিহাস’, ‘দরিয়া পাড়ের দৌলতী’, ‘সোনাবন্ধু’সহ অসংখ্য চলচ্চিত্রে নানামাত্রিক অভিনয় নিয়ে দর্শকদের চমকে দিয়েছেন।

About janaadmin517

Check Also

সাবেক মিস শ্রীলংকা ও বর্তমানের জনপ্রিয় তারকা জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের সম্পর্কে কিছু অজানা তথ্য

আজ আমরা বলিউডের সবচেয়ে বিখ্যাত অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের কথা বলব। তার জনপ্রিয়তার পরিপ্রেক্ষিতে নতুন করে …

মন্তব্য করুন