মঙ্গলবার , নভেম্বর 19 2019
Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / উত্তর কোরিয়ার ভয়ে এবার জাপানে তীব্র আতঙ্ক

উত্তর কোরিয়ার ভয়ে এবার জাপানে তীব্র আতঙ্ক


উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলার ভুল সতর্কবার্তায় আমেরিকার হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের পর এবার জাপানে তীব্র আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। আর এই ভুল বার্তা পাঠানোর জন্য জনগণের কাছে ক্ষমা চেয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার সংস্থা এনএইচকে। এনএইচকে’র মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন থেকে মঙ্গলবার জনগণের কাছে পাঠানো এক বার্তায় বলা হয়, ‘খুব সম্ভবত উত্তর কোরিয়া জাপানকে লক্ষ্য করে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করতে যাচ্ছে। কাজেই জনগণ যেন অনতিবিলম্বে তাদের ঘরবাড়ি ত্যাগ করে।’ এই বার্তায় জনমনে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এরপর এনএইচকে থেকে প্রচারিত এক বার্তায় ভুল সতর্কতা জারি করার জন্য জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়া হয়। এর আগে গত মঙ্গলবার আমেরিকার হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জের অধিবাসীদের কাছে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে একই ধরনের ভুল সতর্কবার্তা পাঠানো হয়। এর ফলে দ্বীপপুঞ্জের অধিবাসীদের মধ্যে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অবশ্য হাওয়াই দ্বীপের জরুরি ব্যবস্থাপনা বিভাগ কিছুক্ষণের মধ্যেই সতর্কবার্তাটি প্রত্যাহার করে নেয়। এই দু’টি ঘটনায় উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের ব্যাপারে আমেরিকা ও তার মিত্র দেশগুলোতে কি পরিমাণ আতঙ্ক বিরাজ করছে তার প্রমাণ পাওয়া যায় বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন। হাওয়াইতে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের ভুয়া অ্যালার্ট, আতঙ্কে কয়েক লক্ষ মানুষ .
#বিবিসি, ১৪ জানুয়ারি ২০১৮
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি স্টেট হাওয়াইতে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ হতে পারে এমন খবরে আতঙ্কে ছড়িয়ে পরে সে এলাকায়। সেখানকার বাসিন্দাদের ফোনে বার্তা পাঠানো হয় এটা ড্রিল নয় অর্থাৎ সত্যিকারের অ্যালার্ট। হাওয়াই এর কর্তৃপক্ষ স্বীকার করেছে, তাদের একজন কর্মকর্তা কম্পিউটারে ভুল বাটন প্রেস করার কারণে কয়েক লক্ষ মানুষের কাছে এই ভুল বার্তা যেয়ে পৌঁছেছে।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টেটে এই অ্যালার্টের কারণে টিভি এবং রেডিও সম্প্রচার বিঘ্নিত হয়। সেখানকার বাসিন্দাদের মোবাইলে যে বার্তা পাঠানো হয় সেখানে এটাও যুক্ত করা হয় ‘এটা কোন অনুশীলন বা ড্রিল নয়’। তাদেরকে আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রয় নেয়ার জন্য বলা হয়। হাওয়াই এর গভর্নর ডেভিড আইজি, মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য ক্ষমা চেয়েছেন।
এদিকে সেখানকার মানুষজন দ্রুতবেগে গাড়ি চালিয়ে নিরাপদ আশ্রয়ের দিকে যেতে দেখা গেছে। সম্প্রতি উত্তর কোরিয়া থেকে ধারাবাহিক ভাবে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার ফলে উত্তেজনা বিরাজ করছে ঐ অঞ্চলে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বলছে এই ঘটনার পূর্নাঙ্গ তদন্ত করা হবে। উত্তর কোরিয়া থেকে হাওয়াইতে সম্ভাব্য ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত হতে পারে এমন একটা অ্যালার্ম সিস্টেমে দেয়া আছে।
ভুয়া এই অ্যালার্ম মোবাইলে যেমন পাঠানো হয় তেমনি রেডিও এবং টেলিভিশনে সম্প্রচার করা হয়। সোশ্যাল মিডিয়াতে পোষ্ট করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ক্ষেপণাস্ত্র এলার্ট পাওয়ার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা দৌড়ে নিরাপদ আশ্রয়ের দিকে যাচ্ছে।

About জানাও.কম

Check Also

সার্ক সম্মেলনে যোগ দিচ্ছে না ভারত!

সার্ক সম্মেলনে যোগ দিতে পাকিস্তানে যাচ্ছে না ভারত। পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদে অর্থায়ন করছে এমন অভিযোগ তুলেই …

মন্তব্য করুন