Breaking News
Home / লাইফ স্টাইল / ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে তুলসি পাতা!

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখে তুলসি পাতা!


তুলসি পাতার রসে এমন কিছু উপাদান রয়েছে যা নানা রোগ সারাতে দারুন কাজ করে। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র অনুসারে তুলসি গাছের পাতা খেলে শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার উন্নতি ঘটে, সেই সঙ্গে নানা ধরনের সংক্রমণ হওয়ার পথ বন্ধ হয়ে যায়। সেই কারণেই তো নিয়মিত তুলসি পাতা খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে।
প্রতিদিন তুলসি পাতা খেলে আরও অনেক উপকারগুলি পাওয়া যায়, যেমন ধরুন-
১) ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে রাখেঃ
অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সুগারের সবথেকে বড় যম তুলসি পাতা। আর এই উপাদানটি বিপুল পরিমাণে রয়েছে তুলসি পাতায়। যদি প্রতিদিন সকালে খালি পেটে কয়েকটি তুলসি পাতা যদি চেবানো যায়, তাহলে রক্তে শর্করার মাত্রা দ্রুত কমতে শুরু করে। তবে এক সঙ্গে অনেক চুলসি পাতা খেয়ে নিলে কিন্তু হঠাৎ করে শর্করারা মাত্রা কমে গিয়ে অন্য বিপদ হতে পারে। তাই সামান্য করে তুলসি পাতা খাওয়া উচিত।
২) মানসিক চাপ কমায়ঃ
শরীরে অ্যান্টি-স্ট্রেস হরমোনের মাত্রা স্বাভাবিক রাখতে তুলসি পাতা দারুন কাজে দেয়। ফলে স্ট্রেস লেভেল কমতে শুরু করে। তুলসি পাতায় প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিস্ট্রেস এজেন্ট রয়েছে, যা রক্ত চলাচল বাড়িয়ে দেয়। ফলে শরীরে উপস্থিত নানা ক্ষতিকর উপাদানের শক্তি কমতে থাকে, সেই সঙ্গে কমতে শুরু করে মানসিক চাপও।
৩) হার্টের কর্মক্ষমতা বাড়ায়ঃ
ইউজেনল নামে বিশেষ এক ধরনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট রয়েছে তুলসি পাতায়, যা রক্তচাপ এবং কোলেস্টরলের মাত্রাকে স্বাভাবিক রাখে। এই দুটি জিনিস নিয়ন্ত্রণে থাকলে হার্টের স্বাস্থ্য ভালো থাকে। আপনি যদি কোন রকমের হার্টের রোগে ভুগে থাকেন তাহলে রোজ সকালে খালি পেটে কয়েকটি তুলসি পাতা চিবিয়ে খান। দেখবেন অল্প দিনেই সুস্থ হয়ে উঠবেন।
৪) ফুসফুসের ক্ষমতা বাড়ায়:
কিছু গবেষণা থেকে জানা যায় তুলসি পাতায় উপস্থিত ক্যাম্পেইনে, ইগোয়েনাল এবং সিনেওল নামক উপাদান, ফুসফুস সংক্রান্ত রোগের প্রকোপ কমানোর পাশাপাশি লাং-এর কর্মক্ষমতা বাড়াতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে। ব্রঙ্কাইটিসের মতো রোগের চিকিৎসাতেও তুলসি পাতা দারুনভাবে সাহায্য করে থাকে।
৫) ক্যান্সার রোগকে দূরে রাখেঃ
প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি-কার্সিনোজেনিক প্রপাটিজ এবং অ্যান্টি-অ্যাক্সিডেন্ট থাকায় তুলসি পাতা খেলে ক্যান্সার রোগও দূরে পালায়। একাধিক গবেষণা অনুসারে, রোজ যদি তুলসি পাতা চিবিয়ে খাওয়া যায়, তাহলে ব্রেস্ট এবং ওরাল ক্যান্সার কমতে শুরু করে। ফলে নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।
৬) দৃষ্টিশক্তির উন্নতি হয়ঃ
নানা রকম ছোট-বড় চোখের সমস্যা দূর করতে তুলসি পাতার কোনও বিকল্প নেই। ভিটামিন এ-র ঘাটতির কারণে যে যে চোখের রোগ হয়, সেগুলির প্রকোপ কমাতে দারুন কাজে আসে তুলসি পাতা। কারন তুলসি পাতায় প্রচুর পরিমানে ভিটামিন এ রয়েছে।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন