Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / কাস্ত্রো পরিবারের বাইরে কিউবায় নতুন নেতৃত্ব

কাস্ত্রো পরিবারের বাইরে কিউবায় নতুন নেতৃত্ব


কয়েক যুগ পর কাস্ত্রো পরিবারের বাইরে নতুন নেতৃত্ব পেয়েছে কমিউনিস্ট শাসিত কিউবা। দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে মনোনীত হয়েছেন রাউল কাস্ত্রোর ঘনিষ্ট হিসেবে পরিচিত মিগুয়েল দিয়াজ কানেল। দেশটির পার্লামেন্ট তাকে নতুন প্রেসিডেন্ট মনোনীত করেছে।

বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে দিয়াজ কানেলের নাম ঘোষিত হবে। এর আগে তিনি দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্বে ছিলেন।

কাস্ত্রো পরিবারের বাইরের নেতৃত্বের কিউবা কিভাবে এগুবে, তা নিয়ে আলোচনা রয়েছে। ৮৬ বছর বয়সী রাউল কাস্ত্রো বার্ধক্যজনিত কারণে অবসরে যাচ্ছেন। তিনি ২০০৮ সালে তার ভাই ফিদেল কাস্ত্রোর স্থলাভিষিক্ত হয়েছিলেন।

রাউল কাস্ত্রো প্রেসিডেন্ট হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কিউবার সম্পর্ক গড়ে তা এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেছিলেন। তিনি দেশের ভেতরেও বেশ কিছু সংস্কার কর্যক্রম শুরু করেছিলেন।

রাউল কাস্ত্রো প্রেসিডেন্টের পদ ছাড়লেও কিউবার ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টিতে তাদের প্রভাব আগের মতই বহাল থাকবে।

মিগুয়েল দিয়াজ কানেল কিউবার ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন ২০১৩ সালে। তার আগে পর্যন্ত তিনি ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির রাজনীতিতে থাকলেও নিজেকে সেভাবে প্রকাশ করতেন না। তিনি প্রেসিডেন্ট রাউল কাস্ত্রোর খুবই কাছের মানুষ।

৫৭ বছর বয়স্ক মিগুয়েল দিয়াজ কানেল উদারপন্থী হিসেবেও পরিচিত। তার জন্ম ১৯৬০ সালে। এর এক বছর আগে কিউবার প্রধানমন্ত্রী হন ফিদেল কাস্ত্রো।

বিশ বছর আগে ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির যুব সংগঠনের মাধ্যমে রাজনীতিতে আসা মিগুয়েল দিয়াজ কাস্ত্রো ইলেকট্রিক্যাল ইনজিনিয়ারিং এ লেখাপড়া করেছেন।

কাস্ত্রো পরিবার ছাড়া নতুন নেতৃত্বে কিউবা কেমন হতে পারে?

ক্যারিবীয় দেশটি নতুন নেতৃত্বে একদলীয় শাসন থেকে বেরিয়ে আসবে, এমনটা ভাবতে চাননা বিশ্লেষকরা। তবে তারা মনে করেন, একদলীয় গণতন্ত্রের পথে হাটতে পারে। ফলে বড় ধরণের কোন পরিবর্তন আসবে না বলে বিশ্লেষকরা বলছেন। ফিদেল কাস্ত্রো এখন অতীত। আর রাউল কাস্ত্রো অবসরে গেলেন।

এই পরিবারের বাইরে নতুন নেতৃত্ব নিয়ে অনেকের শঙ্কা আছে। তবে নতুন নেতৃত্বের উপর রাউল কাস্ত্রোর প্রভাব যে থাকবে, সেই আলোচনাও রয়েছে। নতুন নেতৃত্বকে প্রথমে দেশটির অর্থনীতির দিকে নজর দিতে হবে।

সূত্র: বিবিসি

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন