Breaking News
Home / খেলাধুলা / মস্কোর হোটেলে ফুটবল ভক্তদের মনোরঞ্জন করবে রোবট নারী

মস্কোর হোটেলে ফুটবল ভক্তদের মনোরঞ্জন করবে রোবট নারী


বিশ্ব মাতানো বিশ্বকাপ ফুটবলের মূল আসরের জন্য এখন শুধু দিন গণনার পালা। আর মাত্র কয়েকদিন পরেই রাশিয়ার মস্কোতে পর্দা উঠছে বিশ্বকাপ ফুটবলের। এ মহাআয়োজনকে সামনে রেখে আগেভাগেই হোটেল বুকিং হয়ে গেছে অথবা এখনও চড়া দামে বুকিং হচ্ছে। ফলে হোটেলে হোটেলে গিজ গিজ করবে বিদেশী অতিথিতে। তাদের এক একজনের এক এক নেশা। কেউ শুধুই খেলার পাগল।

তারা শুধুই খেলা উপভোগ করতে যাবেন। আবার কিছু পর্যটক আছেন। তারা খেলা উপভোগের পাশাপাশি মেতে উঠবেন নারী নেশায়। তাদেরকে সুবিধা করে দিতে মস্কোতে গড়ে উঠছে মানবীয় গুণসম্পন্ন নারী রোবটের নিষিদ্ধ জগত। সেখানে একজন পর্যটক অর্থের বিনিময়ে এসব নারী রোবটের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারবেন। এর ফলে যারা প্রকৃত দেহপসারিনী তারা পড়তে চলেছেন বেকায়দায়। আশঙ্কা দেখা দিয়েছে রোবট বিপ্লবের ফলে তারা বেকার হয়ে পড়তে পারেন। বিশ্বকাপ উপলক্ষে তাদের আয় কমে যেতে পারে। ফলে রোবট নারীদের নিয়ে গড়ে তোলা নিষিদ্ধ জগত নিয়ে তাদের টেনশনের শেষ নেই। মানবীয় গুনসম্পন্ন রোবটগুলোকে দেখতে একেবারে বাস্তব মনে হয়। মস্কোতে ব্যবসায়ী এলাকায় গড়ে তোলা হয়েছে ‘দ্য ডলস হোটেল’। এখানে নারী রোবট দিয়ে সাজানো হয়েছে।

উদ্দেশ্য, বিশ্বকাপ উপলক্ষে যে হাজার হাজার ভক্ত মস্কো সফরে যাবেন তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ। আইনগতভাবে রোবটদের এমন নিষিদ্ধ পল্লী গড়ে তোলার বৈধতা নেয়া হয়েছে। একটি রোবট ডলের সঙ্গে একান্তে সময় কাটানোর জন্য সময় ও বিনিময় মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। তা হলো প্রতি ঘন্টায় ২৪ থেকে ৪০ ডলার। চারদিকে যখন এইচআইভি ভাইরাসের ঝুঁকি তখন এমন উদ্যোগ সম্পর্কে রোবটদের নিষিদ্ধ পল্লী সম্পর্কে কথা বলেছেন এর প্রতিষ্ঠাতা দমিত্র আলেক্সানদ্রোভ। তিনি বলেছেন, রোবট নারীরা এখানে শুধু বৈধ এমনটাই নয়। একই সঙ্গে যৌন জীবনের জন্য নিরাপদ ব্যবস্থা। রাশিয়ায় অনেক দিনের পুরনো একটি সমস্যা সমাধানেরও এটা একটি উপায়।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন