Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে পাকিস্তানে নির্বাচনে ৩৭১০০০ সেনা মোতায়েন হচ্ছে

বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে পাকিস্তানে নির্বাচনে ৩৭১০০০ সেনা মোতায়েন হচ্ছে


দক্ষিণ এশিয়ার রাজনীতিতে বহুল আলোচিত দেশ পাকিস্তানে আর মাত্র চার দিন পরেই ২৫ শে জুলাই জাতীয় নির্বাচন। এ নির্বাচনে দেশজুড়ে নির্বাচন কেন্দ্রগুলোতে প্রায় ৩ লাখ ৭১ হাজার সেনা মোতায়েন করা হচ্ছে। তাদেরকে শুধু মোতায়েন করাই হচ্ছে না, একই সঙ্গে দেয়া হচ্ছে ব্যাপক বিচারিক ক্ষমতা। এ নিয়ে পাকিস্তানের রাজনৈতিক ও মানবাধিকা বিষয়ক গ্রুপগুলোর মধ্যে ব্যাপক উদ্বেগ উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে। এর কারণ খুবই পরিষ্কার। একদিকে শুধু নির্বাচন নয়, রাজনীতি থেকে নিষিদ্ধ প্রভাবশালী রাজনৈতিক দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএলএন) প্রধান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ।

তাকে দুর্নীতির অভিযোগে বর্তমানে কারাগারে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে পাকিস্তানের ঐতিহ্যবাহী রাজনৈতিক দল পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) সহসভাপতি ও সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারিকে তিনটি ব্যাংকে অর্থ কেলেংকারিতে জড়িত থাকার অভিযোগ তোলা হয়েছে। ফলে রাজনীতির মাঠ বলতে গেলে ফাঁকা। শুধু প্রকাশ্যে ভাল অবস্থানে আছেন পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ (পিটিআই) দলের প্রধান ও সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান। পিএমএলএন ও পিপিপির প্রতি প্রতিকূলতা দেখিয়ে ইমরান খানকে অনুকূল পরিস্থিতি সৃষ্টি করে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে। তাছাড়া দেশটির রাজনীতিতে সেনাবাহিনীর ভূমিকা সর্বজনবিদিত। সবাই জানেন এ দেশটিতে বেশির ভাগ সময় ক্ষমতায় প্রভাব বিস্তার করে আছে সেনাবাহিনী। এমন অবস্থায় ৩ লাখ ৭১ হাজার সেনা সদস্যকে বিচারিক ক্ষমতা দিয়ে নির্বাচন কেন্দ্রে মোতায়েনের সিদ্ধান্তে বড় ধরনের ভয় দেখা দিয়েছে।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন