Breaking News
Home / খেলাধুলা / ওপেনিংয়ে সৌম্যকেই চান তামিম

ওপেনিংয়ে সৌম্যকেই চান তামিম


ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রি‌কেট দলের উদ্বোধনী জুটির অবস্থা তিন নাম্বার পজিশনের মতোই। এত বেশি পরিবর্তন যে তামিম ইকবালকে সঙ্গ দেয়ার মতো একজন যোগ্য ওপেনার আজও খুঁজে পায়নি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)! কখনও সেখানে ইমরুল কায়েস, কখনও সৌম্য সরকার, লিটন দাস আবার কখনও এনামুল হক বিজয়।

অবশ্য বিজয় নতুন নন। আগেও তিনি তামিমের সাথে টাইগার দলের হয়ে ওপেন করেছেন এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চলতি ওয়ানডের প্রথম ম্যাচেও করেছেন। বলতে পারেন ওপেনারের ছড়াছড়ি! তাহলে তো এই প্রশ্নটি প্রাসঙ্গিক যে আসছে এশিয়া কাপে তামিম ইকবালকে সঙ্গ দেবেন কে? ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হচ্ছে এশিয়ার ক্রি‌কেটের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। মর্যাদার সেই লড়াইকে সামনে রেখে ওপেনিং অর্ডার নিয়ে কতটা ভেবেছে বিসিবি?

আর এই ক্ষেত্রে নিজের সঙ্গে দ্রুত রান তুলতে পারে এমন একজন সঙ্গীকে খুঁজছেন তামিম। কারণ তামিম মনে করেন জুটি বেঁধে খেলতে হলে ধরে খেলা ব্যাটসম্যানের বিপরীতে একজন আগ্রাসী ব্যাটসম্যানের প্রয়োজন। তবে এই দায়িত্বটি তরুণ কোন ক্রিকেটারকে চাপিয়ে দেয়া যৌক্তিক মনে করছেন না তামিম।

নিজের সাথে অভিজ্ঞ কোন ব্যাটসম্যানকেই ওপেনার হিসেবে চাচ্ছেন দেশের এই বাঁহাতি ওপেনার। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার অভিজ্ঞতার পাশাপাশি নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে সচেতন এমন ব্যাটসম্যানই দলের জন্য ভালো কিছু করবে বলে মনে করেন তিনি।

তবে আলাদা করে কোন ওপেনার নির্বাচন না করলেও বাঁহাতি ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকারের নাম ফুটে উঠেছে তাঁর মুখে। ২০১৫ বিশ্বকাপের পর মোট পাঁচজন ওপেনিং সঙ্গীর সাথে খেলেছেন তামিম। যেখানে সবচেয়ে বেশি ২২ টি ইনিংসে ব্যাটিং করেছেন সৌম্যের সাথে।

তামিমের সাথে মোটামুটি ভালোই সফল ছিলেন সৌম্য। ২২ ইনিংসে দুজন মিলে ৪০.৮১ গড়ে করেছেন ৮৯৮ রান। আর এই ম্যাচ গুলোতে তামিমের চাপ অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছিলেন এই বাঁহাতি ওপেনার, শনিবার এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই জানিয়েছেন দেশের তারকা ব্যাটসম্যান তামিম।

‘জুটি বেঁধে খেলার ক্ষেত্রে হয় কি, একজন ধরে খেললেও আরেকজন দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করে। এখন কোন তরুণ ব্যাটসম্যান যদি আমার সাথে ওপেন করে, তাহলে তাকে দ্রুত তোলার দায়িত্ব চাপিয়ে দেয়াও যৌক্তিক না। কারণ নতুন ক্রিকেটার হিসেবে সে চাইবেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট জায়গা পাকা করতে।

‘কিন্তু আপনার যদি এমন কেউ থাকে, যে কিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে স্থায়ী এবং নিজের দায়িত্ব সম্পর্কে ধারনা রাখে, তাকে এই দায়িত্ব দেয়া যায়। ওপেনিং পার্টনারশিপ যদি এমন হয়, তাহলে দলের জন্য সুবিধা। আমি আলাদা করে কারো নাম নিতে চাই না, তবে আমি গত কয়েক বছরে সৌম্য সরকারের সাথে অনেক ব্যাটিং করেছি। সে আমার উপর থেকে চাপ সরানোর ক্ষেত্রে অনেক সাহায্য করত।’

এদিকে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের হয়ে আয়ারল্যান্ড সফরে দারুন ফর্মে ছিলেন সৌম্য সরকার। বিশেষ করে টি-টুয়েন্টি সিরিজে তিনি ছিলেন এক কথায় অসাধারণ। তাই হয়ত সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিতব্য এশিয়া কাপে তামিমের সঙ্গীর খোঁজে সৌম্যের দিকে একটু বাড়তি নজর দিবে নির্বাচকরা।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন