Breaking News
Home / খেলাধুলা / অভিষেকেই ব্যর্থ নতুন আফ্রিদি!

অভিষেকেই ব্যর্থ নতুন আফ্রিদি!


অভিষেকে কেউ সেঞ্চুরি করে, বোলার হলে নেয় ৫ উইকেট কিংবা তৈরি করে স্মরণীয় কোনো ঘটনা। যা দিয়ে ক্রিকেটাররা চায়, নিজের অভিষেককে স্মরণীয় করে রাখতে। কিন্তু পাকিস্তানের ১৮ বছর বয়সী ক্রিকেটার শাহিন শাহ আফ্রিদি নিজের অভিষেক ম্যাচটাকে ভুলে থাকতে চাইবেন লজ্জাজনক এক রেকর্ডের কারণে। দীর্ঘ অপেক্ষার পর আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক ঘটে শাহিন শাহ আফ্রিদির। মোহাম্মদ আমিরকে বসিয়ে রেখে দলে নেয়া হয় তরুণ এই পেসারকে। পাকিস্তানের বোলিং কোচ আজহার মেহমুদ তার মাথায় পরিয়ে দেন অভিষেকের ক্যাপ। সঙ্গে ছিলেন ওয়াসিম আকরামের মত কিংবদন্তি। তিনটি টি-টোয়েন্টি এবং পিএসএলের বেশ কিছু সফল ম্যাচ পুঁজি নিয়েই পাকিস্তানের ওয়ানডে দলে জায়গা করে নিলেন ১৮ বছর বয়সী এই পেসার।
ক্যারিয়ারের প্রথম ম্যাচটিকে দারুণ স্মরণীয় করে রাখতে পারতেন তরুন এই পেসার। কিন্তু আফগানদের বিপক্ষে ফিল্ডিং এতটাই বাজে ছিল যে, সেটা হয়ে গেছে স্মরণকালের সবচেয়ে বাজে ফিল্ডিংয়ের উদাহরণ। দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটিতে ৫টি সহজ ক্যাচ মিস করেছে পাকিস্তান। যার সবগুলো ক্যাস মিসের ঘটনার সঙ্গেই জড়িয়ে রয়েছে শাহিন শাহ আফ্রিদির নাম।
এর মধ্যে তিনবারই ছিল তার নিজের বোলিংয়ের সময়। বাকি দু’বার নিজেই ক্যাচ ছেড়েছেন আফ্রিদি। ম্যাচ শেষে যদিও একজন সফল বোলারই ছিলেন আফ্রিদি। ১০ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। ইকনোমি রেট ৩.৮০। পাকিস্তানি বোলারদের মধ্যে সর্বনিম্ন ইকনোমি রেট ছিল আফ্রিদিরই। আফগান ব্যাটসম্যানরা যখনই মারমুখি হতে শুরু করে, তখনই নিয়ে আসা হচ্ছিল আফ্রিদিকে এবং তিনি টেনে ধরছিলেন রানের লাগাম।
যদি মিস ফিল্ডিংগুলো না হতো তাহলে আফ্রিদির উইকেটসংখ্যা আরও বাড়তো এবং নিজের অভিষেকটা স্মরণীয় হয়ে থাকতো। ইনিংসের ৮ম ওভারের প্রথম বলেই তরুণ এই পেসারের বলে ক্যাচ তুলেছিলেন ইহসানুল্লাহ। মিড অনে ফাখর জামান তার এই ক্যাচটি ফেলে দিলেন হাত থেকে।
পরের বলে আবারও ক্যাচ উঠলো। এবারও ক্যাচ তুললেন ইহসানুল্লাহ। এবার শর্ট ফাইন লেগে ক্যাচ ফেলে দিলেন উসমান খান। ইনিংসের ৩৮তম ওভারের তৃতীয় বলে আবারও ক্যাচ মিস। এবার ক্যাচ ফেললেন আফ্রিদি নিজে। আসগর আফগানের বিপক্ষে বল করছিলেন মোহাম্মদ নওয়াজ। লং অফে উঠিয়ে মারলেন আসগর। ছক্কা। তবে বাউন্ডারি লাইনে একটু লাফ দিয়ে চেষ্টা করলেই পারতেন ক্যাচটি ধরতে।
৪২তম ওভারের ৪র্থ বলে শাহিন শাহ আফ্রিদি বল করলেন আসগর আফগানকে। ডিপ স্কয়ার লেগে ক্যাচ উঠলে এবারও সেটা ড্রপ করেন হারিস সোহেল। নিশ্চিত অর্থেই বোঝা যাচ্ছে, অভিষেকটা মোটেও ভালো হলো না। কারণ, তার বলে তিনটি ক্যাচ মিস হলো।
শেষ ক্যাচটি মিস করলেন আফ্রিদি নিজে। এবারের ঘটনা ৪৩তম ওভারের তৃতীয় বলে। বোলার ছিলেন মোহাম্মদ নওয়াজ। হাশমতউল্লাহ শহিদি ছিলেন ব্যাটসম্যান। লেন্থ বলকে রিভার্স সুইপ খেলতে গেলেন শহিদি। ক্যাচ উঠেছিল শর্ট ফাইন লেগে। এবার আফ্রিদি ক্যাচটা ফেলে দিলেন। এ নিয়ে মোট ৫টি ক্যাচ ড্রপ হলো। তিনটি আফ্রিদির বলে। দুটি মিস করেছেন তিনি নিজে।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন