সোমবার , অক্টোবর 14 2019
Breaking News
Home / শিক্ষা / ‘গ্যারান্টি দিচ্ছি প্রশ্নফাঁস হবে না’

‘গ্যারান্টি দিচ্ছি প্রশ্নফাঁস হবে না’


এবারের মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষায় কোনো ধরণের প্রশ্নফাঁস হবে না বলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ বলেছেন, ‘অতীতের যেকোনো সময়ের তুলনায় এবার আরো ভালো ও সুষ্ঠু পরিবেশে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহণ করা সম্ভব হবে। গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি এবার প্রশ্নপত্র ফাঁস হবে না।’

একটি অনলাইন গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মঙ্গলবার একথা বলেন তিনি। আগামী ৫ অক্টোবর (শুক্রবার) অনুষ্ঠিত হবে সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা।

আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘আসন্ন এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষার সার্বিক প্রস্তুতি সুষ্ঠুভাবে এগিয়ে চলছে। সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা গ্রহণের জন্য পরীক্ষার্থীদের সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করতে নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। সকাল সাড়ে ৮টার পর সব কেন্দ্রের প্রবেশদ্বার খুলে দেয়া হবে। পরীক্ষার্থীদের দেহ তল্লাশি করে ভেতরে প্রবেশ করানো হবে। এ বছর অভিভাবকরা পরীক্ষা কেন্দ্রের চৌহদ্দিতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

প্রবেশপত্রে লিখিত নির্দেশনা অনুযায়ী পরীক্ষার্থীদের স্বচ্ছ কালো কালির বলপেন ব্যবহার করতে হবে। এ ছাড়া মোবাইল ফোন, ঘড়ি ও ক্যালকুলেটরসহ যেকোনো ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে হবে। শুধু পরীক্ষার্থীরাই নন, এ বছর পরীক্ষার হলে যারা ডিউটি করবেন তারাও স্মার্টফোন ব্যবহার করতে পারবেন না। শুধুমাত্র বাইরে যোগাযোগ করার জন্য তাদেরকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে এনালগ মোবাইল ফোন সরবরাহ করা হবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘একজন ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে পুলিশ প্রহরায় ঢাকা ও ঢাকার বাইরের পরীক্ষা কেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা প্রশ্নপত্র নিয়ে যাবেন। যে সব ট্রাংকে প্রশ্নপত্র পাঠানো হবে সে সব ট্রাংকের সাথে বিশেষায়িত ইলেকট্রনিক ডিভাইস স্থাপিত থাকবে, যার মাধ্যমে প্রশ্নপত্র বহনকারী গাড়ির গতিবিধি স্বাস্থ্য অধিদফর থেকে সার্বক্ষণিক মনিটর করা হবে।

সিলগালা প্রশ্নপত্রের ট্রাংকটি এক মিলিমিটার পরিমাণ খুললেও অধিদপ্তরের মনিটরে সংকেত বেজে উঠবে। পরীক্ষার আগের দিন সরকারি ট্রেজারিতে প্রশ্নপত্র রেখে পরদিন সকালে পরীক্ষার হলে নেয়া হবে।’

আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘পরীক্ষার আগের রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকসহ বিভিন্ন অখ্যাত অনলাইনে প্রশ্নপত্র ফাঁসের গুজব ছড়ানো হয়। এসব বন্ধে করণীয় নির্ধারণে ইতোমধ্যেই একাধিক গোয়েন্দা সংস্থাসহ আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। এখন থেকেই তারা সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন।

এ ছাড়া পরীক্ষার আগের দিন থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে নিয়ন্ত্রণকক্ষ খোলা হবে। নিয়ন্ত্রণকক্ষে টেলিফোন বা মোবাইলে কল করে যেকোনো ধরনের অভিযোগ জানাতে পারবেন। পরীক্ষার আগের দিন পরীক্ষা কেন্দ্রের আশেপাশের সকল ফটোকপি মেশিনের দোকান বন্ধ থাকবে।

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের জন্য আগামী শুক্রবার (৫ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অধীনে কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানীসহ সারাদেশের ১৯টি কেন্দ্রে সরকারি ও বেসরকারি মেডিকেল কলেজের এমবিবিএস প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। চলতি বছরের ভর্তি পরীক্ষায় প্রায় ৬৬ হাজার পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করবে। সরকারি ৩৬টি মেডিকেল কলেজে ৪ হাজার ৬৮টি ও বেসরকারি ৬৯টি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে আসন সংখ্যা ৫ হাজার ৭৫১টি।’

About জানাও.কম

Check Also

এসএসসির ফরম পূরণে সর্বোচ্চ ফি ১ হাজার ৮০০ টাকা

ঢাকা, ৮ নভেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : সারাদেশে আগামী ২০১৯ সালের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার …

মন্তব্য করুন