Breaking News
Home / বিনোদন / মিস ওয়ার্ল্ড : ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি ছাত্রীর সঙ্গে অবিচার!

মিস ওয়ার্ল্ড : ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি ছাত্রীর সঙ্গে অবিচার!

মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৮’ প্রতিযোগিতায় ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ছাত্রী নিশাত নাওয়ার সালওয়ার প্রতি অবিচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গ্র্যান্ড ফাইনালে সেরা প্রতিযোগির নাম ঘোষণার আগেই কে হচ্ছেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ তা প্রকাশ পেয়ে যায়। জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশীকে এবার মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ করা হচ্ছে তা সবার মুখে মুখে চলে আসে। এরজন্য নাকি আয়োজকদের সঙ্গে বিশেষ সমঝোতাও করেছেন ঐশী এমন কথাও চাউর হয়েছে। এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

গোপন সূত্রে জানা গেছে এবারও আয়োজক প্রতিষ্ঠানের আশীর্বাদপুষ্ট হয়ে মিস ওয়ার্ল্ডের মূল পর্বের জন্য চীনে যাচ্ছেন টপ টেন প্রতিযোগী জান্নাতুল ফেরদৌস ঐশী। ফাইনালের আগেই সবকিছু চূড়ান্ত করে রাখা হয়। নিজ মাথায় মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশের মুকুট পড়বার জন্য বিশেষ সমঝোতার ক্ষেত্রেও দ্বিধা করেননি ঐশী এমন অভিযোগও উঠেছে।

যদিও এসব বিষয় মানতে নারাজ আয়োজক প্রতিষ্ঠান। তবে এ বিষয়টি নিয়ে তারা কথা বলতেও নারাজ। এবিষয়ে অন্তর শোবিজের চেয়ারম্যান জনাব স্বপন চৌধুরীকে বারবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি।

এবারের আসরে মূল বিচারকের দায়িত্ব পালন করছেন জনপ্রিয় কন্ঠশিল্পী শুভ্রদেব, মডেল ও অভিনেত্রী তারিন, মডেল ও অভিনেতা খালেদ সুজন, মডেল ইমি, ব্যরিস্টার ফারাবী।

প্রসঙ্গত, গত অাসরেও মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ঘোষণা নিয়ে নাটক মঞ্চস্থ করা হয়। আয়োজক প্রতিষ্ঠানের পছন্দ অনুযায়ী এভ্রিলকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। যদিও বিয়ে বিতর্কের কারণে পরে জেসিয়াকে বিজয়ী ঘোষণা করেন আয়োজকরা। এবার কোনরকম পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই শুরু হয় সুন্দরী বাছাই প্রক্রিয়া। শেষতক নিজেদের পছন্দ অনুযায়ী সেরা সুন্দরী বাছাই করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে এবার সেরা ১০ সুন্দরীদের মধ্যে প্রথম রানার্স আপ হয়েছে সিলেটের বিয়ানীবাজারের মেয়ে নিশাত নাওয়ার সালওয়া। ব্র্যাক ইউনিভার্সিটিতে ইংরেজিতে পড়াশোনা করছেন তিনি। প্রতিযোগিতা চলাকালে তিনি বিচারকের প্রশংসায় ভেসেছেন। ধারণা করা হচ্ছিল তিনিই হবেন মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ। কিন্তু শেষতক তার প্রতি অবিচার করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠে।

নিশাত বিয়ানীবাজার উপজেলার লাউতা ইউনিয়নের কানলী গ্রামের বাংলাদেশে পরিকল্পনা মন্ত্রণালণের পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের মহা-পরিচালক মো. রফিকুল ইসলাম বাদলের মেয়ে।

গ্র্যান্ড ফিনালে সেরা দশ থেকে পর্যায়ক্রমে সালওয়া, সেরা পাঁচ, সেরা তিন অতিক্রম করে সেরা দুইয়ে জায়গা করে নেন। তবে উত্তেজনাকর শেষ মুহূর্তে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ রানার্সআপ নির্বাচিত হন বিয়ানীবাজারের এ কৃতি সন্তান। তিনি প্রতিযোগিতায় মিস ইন্টেলিজেন্ট অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছেন।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন