Breaking News
Home / আন্তর্জাতিক / সিএনএন সাংবাদিকের সাথে উত্তপ্ত ট্রাম্প, যা হল

সিএনএন সাংবাদিকের সাথে উত্তপ্ত ট্রাম্প, যা হল


বাকবিতণ্ডা শুরু হয় যখন সাংবাদিক সম্মেলনে সিএনএন সাংবাদিক অ্যাকোস্টার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে মধ্য আমেরিকার অভিবাসীদের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করেন৷ তিনি পর পর প্রশ্ন করতে থাকেন আমেরিকার বর্ডারে আসতে থাকা তাঁদের ক্যারাভ্যান সম্পর্কে৷ প্রশ্ন শুনে ক্ষেপে যান ট্রাম্প৷ বলেন “যথেষ্ট হয়েছে৷” এরপরই হোয়াইট হাউসের এক ইন্টার্ন সিএনএনের সাংবাদিক অ্যাকোস্টার মাইক্রোফোনটি ছিনিয়ে নিতে চেষ্টা করেন৷ যদিও ব্যর্থ হয়ে আবার গিয়ে বসে পড়েন৷

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারাহ স্যান্ডারর্স জানান “প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রেস স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন, চান এবং তাঁর ও প্রশাসন ওপর করা শক্ত প্রশ্নকেও স্বাগত জানান৷ কিন্তু আমরা কখনই এটা বরদাস্ত করবোনা যেখানে একজন হোয়াইট হাউসের ইন্টার্ন তরুণী তাঁর কাজ করতে যান ও এক সাংবাদিক তাঁর উপর হাত তোলেন৷ এটা কখনই মেনে নেওয়া যায়না৷”

কিন্তু ঘটনার ভিডিও বলছে অন্য কথা। ভিডিও দেখা যায়, ঐ সংবাদিকের মাইক্রোফোনটি কেড়ে নেয়ার জন্য যে এসেছিল সেই নারী তিনবার চেষ্টা করেও না পেরে বসে পড়েন। তাকে কোন রকম লাঞ্ছনা করাই হয়নি।

এই বিষয়টি নিয়ে উত্তাল হয়ে ওঠে টুইটার দুনিয়া৷ অনেকেই নিজেদের মন্তব্য টুইট করতে থাকেন৷ অনেকেই এই ঘটনাকে নক্কারজনক আখ্যা দিয়েছেন৷ অনেকেই ওই ঘটনার ভিডিও পোস্ট করে বলেছেন সাংবাদিক এমন কোনও আচরণ করেনননি৷

এরপরই সাংবাদিক অ্যাকোস্টা টুইট করে বলেন “পুরো বিষয়টি মিথ্যা”৷ সেই সাংবাদিক সম্মেলনে তাঁর সঙ্গে সেখানে উপস্থিত থাকা আরও অনেক সাংবাদিক অ্যাকোস্টাকে সমর্থন করেন৷ এরপর CNN তার সাংবাদিকের পাশে দাঁড়িয়ে বলে “সেক্রেটারি স্যান্ডারস মিথ্যা বলছেন৷ CNN এও জানায় প্রাস পাস সাসপেন্ড করার কারণ হল “চ্যালেঞ্জিং প্রশ্নের প্রতিশোধ”৷

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন