Breaking News
Home / খেলাধুলা / সেঞ্চুরির ‘হ্যাটট্রিক’ করে রেকর্ডবুকে নাম তুললেন মুমিনুল

সেঞ্চুরির ‘হ্যাটট্রিক’ করে রেকর্ডবুকে নাম তুললেন মুমিনুল


জহুর আহমেদ চৌধুরী ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সবশেষবার যখন খেলতে নেমেছিল বাংলাদেশ, সে ম্যাচে দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন মুমিনুল। চলতি বছরের জানুয়ারিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সে টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ১৭৬ রানের ইনিংস খেলার পরে, দ্বিতীয় ইনিংসে করেছিলেন ১০৫ রান। আজ আবারও সেঞ্চুরি করে সাগরিকার এই মাঠে সেঞ্চুরির হ্যাটট্রিক পূরণ করলেন বাঁহাতি এ টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান।

মজার ব্যাপার হচ্ছে, এ মাঠে ছয়বার পঞ্চাশ পেরিয়েছেন মুমিনুল, এর প্রত্যেকবারই পঞ্চাশকে শতকে পরিণত করেছেন কক্সবাজার সমুদ্রের পাশে বেড়ে ওঠা এ ক্রিকেটার। সাগরিকায় ছয় সেঞ্চুরির সাথে মিরপুরের শেরে বাংলায়ও দুইটি সেঞ্চুরি রয়েছে মুমিনুলের। সবমিলিয়ে ক্যারিয়ারের অষ্টম সেঞ্চুরিতে তামিম ইকবালের পাশে বসেছেন তিনি।

এতদিন ধরে ৮টি সেঞ্চুরি নিয়ে বাংলাদেশের পক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির মালিক ছিলেন তামিম। সে রেকর্ডেই ভাগ বসালেন মুমিনুল। এছাড়া একই ভেন্যুতে ছয়টি সেঞ্চুরি করে রিকি পন্টিং (এডিলেইড ও সিডনি), গ্রাহাম গুচ (লর্ডস), মাইকেল ভন (লর্ডস) ও ম্যাথু হেইডেনের (মেলবোর্ন) পাশে নিজের নাম তুলেছেন মুমিনুল।

সেঞ্চুরি করার পথে ৬৯ বলে ৭ চারের মারে নিজের পঞ্চাশ পূরণ করেছিলেন তিনি। পরে দ্বিতীয় পঞ্চাশ করতে খেলেন ৬৭টি বল। আগের ওভারে ক্যারিবীয়ান লেগস্পিনার দেবেন্দ্র বিশুকে ছক্কা মেরে ৯২ থেকে পৌঁছে যান ৯৮-তে। পরের ওভারে রস্টোন চেজকে স্কয়ার কাটে সীমানা ছাড়া করে নিজের অষ্টম ও সাগরিকায় ষষ্ঠ সেঞ্চুরি তুলে নেন মুমিনুল। অবশেষে ১২০ রান করে তিনি সাজঁ ঘরে ফিরে যান।

দিন শেষে ৮৮ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ উইকেট হারিয়ে ৩১৫ রান। তাইজুল ৩২ ও নাইম ২৪ রান করে মাঠে রয়েছেন।

About বার্তা সম্পাদক

মন্তব্য করুন