Breaking News
Home / অঞ্চলিক সংবাদ / আশুগঞ্জে মৃত্যুর ১ মাস ১৯দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

আশুগঞ্জে মৃত্যুর ১ মাস ১৯দিন পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন


বাবুল সিকদার:: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশগঞ্জে ইয়াকুব ভুইয়া (৭২) মৃত্যুর ১মাস ১৯ দিন পর কবর থেকে তার অর্ধ গলিত লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা দগরিসার কবরস্থান থেকে লাশটি উত্তোলন করা হয়। আদালতের নির্দেশে সহকারি কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট কিশোর কুমার দাস ও আশুগঞ্জ থানার এস আই সুমন,পি,এসআই হাবিব,আমান উল্লাহ,আরিফুল ইসলামের উপস্থিতিতে ওই লাশটি কবর থেকে উত্তোলন করা হয়। ম্যাজিষ্ট্রেট কিশোর কুমার দাস জানান, অর্ধ গলিত লাশটি পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সদর হাসপাতালে ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হবে।তিনি আরও বলেন আগামী এক সাপ্তাহ মধ্যে প্রতিবেদন রিপোর্ট হবে রিপোর্ট হাতে পেলে আদালতে দায়ের করা মামলাটি আমলে নিয়ে বিচারিক কার্যক্রম শুরু হবে।এসময় তাঁর ছেলে ও স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।
নিহতের পরিবার ও থানা সুত্রে জানা গেছে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে দগরিসার গ্রামের ইয়াকুব ভুইয়াকে মারধর চিকিৎসাধীন অবস্থায় অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়। তাঁর পরিবার এদাবি করে আদালতে একটি হত্যা মামলা করেন। আড়াইসিধা ইউপি,৯নং ওর্য়াডের সদস্য, নুরে আলম,এলাকাবাসি মো.মিজানুর রহমান ও মামলার বাদী সিরাজুল ইসলাম ভুইয়া জানান,৩০শে নভেম্বর ২০১৯ সোমবার দিবাগত রাত ৯ টায় তিনি এশার নামাজ পড়ে বাড়িতে আসার সাথে সাথে,পূর্ব শত্রুতার জেরধরে ছাদির মিয়া ও তার ছেলেরা তাদের দলবলসহ ইয়াকুব ভুইয়াকে ঘর থেকে টেনে হেছড়ে বের করে মারধর শুরু করে।

তার ছোট ছেলে লিটন তার বাবাকে উদ্ধার করতে এগিয়ে গেলে তখন তার উপড়ও আক্রমন করে ছাদির মিয়া ও তার সহযোগীরা। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা এসে তাকে উদ্ধার করে আহত অবস্থায় ইয়াকুব ভ্ইুয়াকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। ইয়াকুব ভুইয়ার অবস্থা বেশি ভালো না বলে ঢাকা হাসপাতালে রেফার্ড করে জেলা সদর হাসপাতালের ডাক্তারগণ। ঢাকা হাসপাতাল থেকে বাড়িতে নিয়ে আসার তিনদিন পর ইয়াকুব ভুইয়া মারা যান। ইয়াকুব ভুইয়ার পরিবার ও এলাকাবাসী আদালতের কাছে তার হত্যার সুষ্ঠ বিচারের দাবি করেন। পরে তার চাচা মো.সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে ১০জনকে আসামিকরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। তার পরিবার আরোও বলেন পরিস্থিতি বিবেচনায় তখন থানায় না জানিয়ে ময়না তদন্ত ছাড়াই তাঁর লাশ দাফন করা হয়েছিল। গত (২০ ফেব্রুয়ারি )বৃহস্পতিবার কবর থেকে লাশ উত্তোলন করার নির্দেশ দেন আদালত।

About বার্তা সম্পাদক

মন্তব্য করুন