Breaking News
Home / অঞ্চলিক সংবাদ / নবীগঞ্জে যাত্রীবাহী বাসে ২৪ জন যাত্রীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে

নবীগঞ্জে যাত্রীবাহী বাসে ২৪ জন যাত্রীকে হোম কোয়ারেন্টাইনে


হবিগঞ্জ প্রতিনিধি এনামুল হহক আরিফঃ লকডাউনের মধ্যেই পটুয়াখালী থেকে ৩৯ জন যাত্রী নিয়ে সিলেট আসলো অগ্রদূত বাস।এই বাসের মধ্যে হবিগঞ্জ জেলার ২৪ জন যাত্রীর মধ্যে নবীগঞ্জের ১৫ জন যাত্রী। এ নিয়ে স্থানীয় মানুষের মধ্যে চলছে সর্বত্র তুমুল আলোচনা সমালোচনা।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে সিলেট জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে আগেই। লকডাউন অবস্থায় সিলেটে প্রবেশ এবং সিলেট থেকে বাইরে যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আছে।

এ ছাড়া করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সারা দেশে বাস চলাচলও বন্ধ আছে।এই অবস্থায় প্রায় ৩৯ জন যাত্রী নিয়ে পটুয়াখালী জেলার তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে একটি অগ্রদূত বাস গতকাল (২৩ এপ্রিল) রাত্রে সিলেট এসেছে।

লকডাউন থাকা অবস্থায় যাত্রী নিয়ে বাস আসার নেপথ্যের ঘটনা। গত বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) রাত্রে যাত্রী সহ অগ্রদূত পরিবহনের একটি বাস শেরপুর চেকপোষ্টে
আসে। চেকপোস্টে আসার পর তারা দায়িত্বরত অফিসারের নিকট একটি প্রত্যয়ন পত্র প্রদর্শন করে।

প্রত্যয়ন পত্র দেখা যায় যে কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্বাক্ষরিত “বাসে থাকা যাত্রীদের তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের শ্রমিক” হিসেবে উল্লেখ করেছেন। বর্তমানে তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ থাকায় তাদেরকে ধান কাটার জন্য সিলেটে প্রেরণ করা হয়।

চেক পোস্টে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা লিখিত ডকুমেন্ট থাকায় এবং যেহেতু বাসটি পটুয়াখালী থেকে আসার পথে কোথাও বাধা প্রাপ্ত না হয়ে শেরপুর চেকপোস্টে আসে সেই বিবেচনায় বাসটিকে সিলেট যাওয়ার অনুমতি দেয়।

পরবর্তীতে সিলেট মেট্রোপলিটন এলাকায় বাধা প্রাপ্ত হলে বাসটি পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে তখন মোঃ রফিকুল ইসলাম অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ওসমানীনগর সার্কেলের নেতৃত্বে ওসমানীনগর থানা পুলিশ তৎপর হয়ে বাসসহ ২৭ জনকে আটক করে। যার মধ্যে তিনজন কানাইঘাট থানার বাসিন্দা হওয়ায় কানাইঘাট থানার মাধ্যমে তাদেরকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার জন্য কানাইঘাট প্রেরণ করা হয় এবং বাকি ২৪ জনকে বাসসহ নবীগঞ্জ প্রেরণ করা
হয় যাদের সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশ প্রাতিষ্ঠানিক কোয়াারেন্টাইন নিশ্চিত করবে।

এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ কুমার পাল জানান, আটককৃত ২৪ জন যাত্রীর মধ্যে নবীগঞ্জের ১৫ জন যাত্রী এবং বাকিরা অন্যান্য উপজেলার। আর পটুয়াখালীর তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র বন্ধ থাকার কারণে তারা ধান কাটতে এলাকায় ফিরেছেন এবং পাটুয়াখালীর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার একটি প্রত্যয়নপত্র নিয়ে এসেছেন তারা।

তিনি আরো বলেন, পটুয়াখালী থেকে আসা নবীগঞ্জের যাত্রীদেরকে নবীগঞ্জ আদর্শ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ২৪ জনকেই কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন