Breaking News
Home / লাইফ স্টাইল / ইফতারে লেবুর শরবতের উপকারিতা

ইফতারে লেবুর শরবতের উপকারিতা

  

জানাও ডেস্কঃ রোজা রেখে বেশির ভাগ মানুষই ক্লান্ত অনুভব করেন। সারা দিন রোজা রেখে এক গ্লাস লেবুর শরবত আপনার ক্লান্তিভাব দূর করতে পারে। লেবুতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকায় এটি জ্বর, সর্দি, কাশি ও ঠান্ডাজনিত সমস্যায় অত্যন্ত কার্যকর। এ ছাড়া লেবুর রয়েছে আরও নানা গুণাগুণ।

লেবুর কয়েকটি গুণ সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক-

শক্তি জোগায়

লেবুর শরবত তৎক্ষণাৎ শক্তি বৃদ্ধি করে। প্রতিদিন লেবুর শরবত খেলে মেজাজ থাকবে ফুরফুরে আর কাজেও পাবেন শক্তি।

হজম শক্তি বাড়ায়

লেবুর শরবত হজম শক্তি বৃদ্ধি করে। এক গ্লাস কুসুম গরম পানির সঙ্গে লেবুর রস মিশিয়ে খেলেই হজম শক্তি বৃদ্ধি পাবে। গ্যাসট্রিকের সমস্যা যাদের আছে এটি তাদের জন্যও উপকারী। কারণ, লেবুর পানি খুব সহজে পরিপাক নালির মধ্যে থাকা টক্সিন শরীর থেকে বের করে দেয়।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়

লেবুতে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন সি। যে কারণে এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তাই ইফতারে নিয়মিত লেবুর শরবত খান।  

ওজন কমাতে

ওজন কমাতে বা মেদ ঝরাতে লেবু দারুণ কার্যকরী তুলনা নেই। হালকা গরম পানিতে, লেবুর রসের সঙ্গে মধু মিশিয়ে খেলে আরও ভালো কাজ করে।

ভাইরাস ও ব্যাক্টেরিয়া প্রতিরোধী

লেবু ভাইরাস ও ব্যাক্টেরিয়া প্রতিরোধেও দারুণ কাজ করে। ভাইরাস ও ব্যাক্টেরিয়ার সংক্রমণ এড়াতে লেবুর শরবত খেতে পারেন। বিশেষ করে ফ্লু, সর্দি-কাশি ও গলাব্যথা হলে লেবুর শরবত খেতে পারেন।

মস্তিষ্ক ভালো রাখে

লেবুর মধ্যে রয়েছে অতিমাত্রায় পটাশিয়াম ও ম্যাগনেশিয়াম। যা শুধু মস্তিষ্ক নয়, স্নায়ুকেও সতেজ রাখতে সাহায্য করে। চিন্তাশক্তি বাড়ায়।

ক্যানসার প্রতিরোধক

লেবুতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট বিভিন্ন ধরনের ক্যানসারের ঝুঁকি কমায়। লেবু রক্ত পরিষ্কার করতেও সাহায্য করে এবং মুখের স্বাদ বৃদ্ধি করে।

About জানাও.কম

মন্তব্য করুন